আজকের ট্রেন্ডিং

টি-20 ক্রিকেটে উইকেট কিপিংয়ের দায়িত্ব থেকে সরে দাড়ালেন মুশফিকুর রহিম

টেস্টের পর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব ছেড়ে দিচ্ছেন বাংলাদেশের কিংবদন্তি উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। এ ভার্সনেও তিনি আর উইকেটকিপিং করতে চান না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচের পর এ তথ্য জানিয়ে দিয়েছেন ডমিঙ্গো। 

সিরিজ শুরুর আগে ডমিঙ্গো জানিয়েছিলেন, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে ভাগ করে উইকেটকিপিং করবেন নুরুল হাসান সোহান ও মুশফিকুর রহিম। প্রথম দুই ম্যাচে সোহানের পর তৃতীয় ও চতুর্থ ম্যাচে গ্লাভস সামলানোর কথা ছিল মুশফিকের। আর শেষ ম্যাচের সিদ্ধান্ত পরে নেওয়ার কথা ছিল।

তবে তৃতীয় ম্যাচ শুরুর আগে টিম শিটে দেখা যায়, উইকেটকিপার হিসেবে আছে নুরুলেরই নাম। ম্যাচ শেষে বিসিবির ভিডিও কনফারেন্সে ডমিঙ্গো জানিয়েছিলেন তাঁর সাথে মুশির (মুশফিক) প্রাথমিক কথা হয়েছিল যে সে দ্বিতীয় ম্যাচের পর কিপিং করবে। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের মিস্টার ডিপেন্ডবল বলেছে যে সে হয়তো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আর কিপিং করবে না, তাই তাদের এখন এগিয়ে যেতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মুশফিকের এই ফরম্যাটে থাকার ইচ্ছাটা এখন আর আগের মত নেই বলে মনে করেন তিনি। তাদের এখন সোহানের (নুরুল হাসান) দিকে নজর রাখতে হবে এবং প্রতিযোগিতার সময় তার উইকেট রক্ষার দায়িত্ব পালন করতে হবে।

প্রধান কোচ বলেছেন যে তাদের এখন নুরুলের দিকেই মনোযোগ দিতে হবে, যিনি জুলাইয়ের মাঝামাঝি থেকে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে উইকেটকিপিং করছেন এবং আগামী মাসে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই কাজ করার জন্য তিনিই প্রথম পছন্দ হিসেবে দলে থাকবেন।

২০১৯ সালে টেস্ট ক্রিকেট থেকে উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। তারপর থেকে সে দায়িত্ব পালন করছিলেন লিটন দাস। শেষ জিম্বাবুয়ে সফর থেকে পারিবারিক কারণে আগেভাগেই দেশে ফিরেছিলেন মুশফিক। তাঁর বদলে ওয়ানডেতে লিটন এবং টি-টোয়েন্টিতে প্রায় তিন বছর পর জাতীয় দলে ফেরা নুরুল হাসান উইকেটকিপিং করেছিলেন।

উল্লেখ্য, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে উইকেটরক্ষক হিসেবে ৩২টি ক্যাচ ও ২৯টি স্ট্যাম্পিং করেছেন মুশফিক। এছাড়া ফিল্ডার হিসেবে ধরেছেন আরও ৫টি ক্যাচ। 

ক্রিকেটের আরও সর্বশেষ খবর জানতে, Baji -তে চোখ রাখুন! 

আরো আজকের ট্রেন্ডিং