ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ২৭ নভেম্বর: বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান (১ম টেস্ট – ২য় দিন), ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (১ম টেস্ট – ৩য় দিন)

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যে ১ম টেস্টের ২য় দিনের খেলা এবং ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার ১ম টেস্টের ৩য় দিনের খেলা গতকাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ম্যাচের উত্তেজনাপূর্ণ ঘটনাগুলো জানতে নিবন্ধনটি পড়া চালিয়ে যান।

বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান (প্রথম টেস্ট – ২য় দিন)

প্রথম দিন শেষে ২৫৩ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল, ক্রিজে থাকা লিটন দাস (১১৩) এবং মুশফিকুর রহিমকে (৮২) নিয়ে দ্বিতীয় দিন সকালে মাঠে নামে। কিন্তু পাকিস্তানী বোলারদের আগ্রাসী বোলিংয়ে ২য় দিন দলীয় স্কোরে মাত্র ৭৭ রান যোগ করতেই শেষ ৬ উইকেট হারায় টাইগাররা।

ব্যাটিংয়ে নেমে স্কোর বোর্ডে মাত্র ২ রান যোগ হতেই হাসান আলীর শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরেন লিটন (১১৪)। আর এক ব্যাটসম্যান মুশফিকও বেশিক্ষণ উইকেটে টিকে থাকতে পারেননি। দলীয় ২৭৬ রানে সপ্তম ব্যাটার হিসেবে ২২৫ বলে ৯১ রানের এক দু:সাহসিক ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নে ফিরেন তিনি। তার আগে সাজঘরে ফিরেন অভিষিক্ত ইয়াসির আলি (৪)। এরপর মেহেদী হাসান কিছুটা প্রতিরোধ গড়তে পেরেছিলেন। তিনি ৬৮ বলে অপরাজিত ৩৮ রান করেন। 

শেষ পর্যন্ত ১১৪.৪ ওভারে ৩৩০ রানে থেমে যায় টাইগারদের প্রথম ইনিংস। ম্যান ইন গ্রিনদের পক্ষে হাসান আলী সর্বোচ্চ ৫ উইকেট শিকার করেছেন। এছাড়া ফাহিম আশরাফ ও শাহিন আফ্রিদি ২টি এবং সাজিদ খান ১টি করে উইকেট তুলে নেন।

নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে পাকিস্তানী দুই ওপেনার আবিদ আলী এবং আবদুল্লাহ শফিক। বাংলাদেশের থেকে ১৮৫ রানে পিছিয়ে থেকে উদ্বোধনী জুটিতে ৮৫ ওভারে ১৪৫ রান সংগ্রহ করে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে তাঁরা। আবিদ আলী (৯৩*) এবং আবদুল্লাহ শফিক (৫২*) তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন।

স্কোরবোর্ড

বাংলাদেশ (১ম ইনিংস) – ৩৩০/১০ (১১৪.৪)

পাকিস্তান (১ম ইনিংস) – ১৪৫/০ (৮৫.০)


ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (প্রথম টেস্ট – ৩য় দিন)

দ্বিতীয় দিন শেষে কোন উইকেট না হারিয়ে ১২৯ রান সংগ্রহ করা নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল, ক্রিজে থাকা উইল ইয়াং (৭৫) ও টম ল্যাথাম (৫০) নিয়ে দ্বিতীয় দিন সকালে মাঠে নামে। কিন্তু ভারতীয় স্পিনার অক্ষর প্যাটেলের ঘূর্ণি তোপে পড়ে ২৯৬ রানেই অলআউট হয়ে যায় সফরকারীরা।

নিউজিল্যান্ডের দুই ওপেনারই ১৫১ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে তুলেছিলেন। ওপেনার উইল ইয়াং ২১৪ বলে ৮৯ রান করে বিদায় নেয়ার পরই তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়ে কিউইদের ব্যাটিং লাইন-আপ। টম ল্যাথাম একপ্রান্ত ধরে রাখার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৫ রান দূরে, ৯৫ রানের ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নে ফিরেন এই ব্যাটসম্যান। পরের ব্যাটারদের মধ্যে কেন উইলিয়ামসন ১৮, রস টেলর ১১, হেনরি নিকোলস , টম ব্লান্ডেল ১৩ রান করে আউট হন। 

অভিষিক্ত রাচিন রবিন্দ্রও ১৩ রান করে সাজঘরে ফিরেন। কাইল জেমিসন ২৩ রান করে বিদায় নেন। শেষ পর্যন্ত ১৪২.৩ ওভার ব্যাট করে ২.০৭ রান রেটে ২৯৬ রান সংগ্রহ করে কিউইরা। ম্যান ইন ব্লুদের পক্ষে অক্ষর প্যাটেল সর্বোচ্চ ৫ উইকেট শিকার করেন। এছাড়া রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৩টি এবং উমেশ যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজা ১টি করে উইকেট তুলে নেন।

৪৯ রানের লিড পেয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার শুভমান গিলের উইকেট হারায় ভারত। কাইল জেমিসনের বলে বোল্ড হয়ে যান তিনি। তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেট হারিয়ে ১৪ রান করে ভারত। মায়াঙ্ক আগরওয়াল ৪ রানে এবং চেতেশ্বর পুজারা ৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

স্কোরবোর্ড

ভারত (১ম ইনিংস) – ৩৪৫/১০ (১১১.১)

নিউজিল্যান্ড (১ম ইনিংস) – ২৯৬/১০ (১৪২.৩)

ভারত (২য় ইনিংস) – ১৪/১ (৫.০)

 

ক্রিকেটের দীর্ঘ সংস্করণে কিছু দুর্দান্ত ক্রিকেট অ্যাকশন চলছে। তাদের আপডেট পেতে, Baji –র সাথেই থাকুন!

আরো ব্লগ