ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ০৩ সেপ্টেম্বর: বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ড (২য় টি২০), ইংল্যান্ড বনাম ভারত (ডব্লিউটিসি, ৪র্থ টেস্ট – ২য় দিন)

বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার ৫ ম্যাচের সিরিজের ২য় টি-টোয়েন্টি এবং ইংল্যান্ড ও ভারতের মধ্যকার ৪র্থ টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা গতকাল মাঠে গড়িয়েছে। ম্যাচের উত্তেজনাপূর্ণ ঘটনাগুলো সম্পর্কে জানতে নিবন্ধনটি পড়তে থাকুন।

বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ড (২য় – টি২০)

শুক্রবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সফরকারী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ রানের জয় পেয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। সেই সাথে সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা।

টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে টাইগার ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম ও লিটন দাস উদ্বোধনী জুটিতে ৫৯ রান তুলে ফেলেন। পরে লিটন (৩৩) ও নাঈম (৩৯) সাজঘরে ফিরে গেলে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। শেষে ৩২ বলে অপরাজিত ৩৭ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারানো দলকে ১৪১ রানের লড়াকু পুঁজি এনে দেন তিনি। কিউইদের হয়ে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট শিকার করেন রচীন রবীন্দ্র।

১৪২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলীয় ১৮ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ব্ল্যাক ক্যাপসরা। এরপর অধিনায়ক টম ল্যাথাম ও উইল ইয়াং এর ৪৩ রানের জুটিতে আবারও ম্যাচে ফিরে কিউইরা। কিন্তু ইয়াং (২২) সাজঘরে ফিরে গেলে বাংলাদেশী বোলারদের বোলিং তোপে ল্যাথামকে আর কেউ যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেনি। যার ফলে নিয়মিত উইকেট বিরতিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে দলীয় ১৩৭ রানে শেষ হয় সফরকারীদের ইনিংস।

কিউদের হয়ে ৬ চার ও ১ ছক্কায়, ৪৯ বলে অপরাজিত ৬৫ রানের এক সাহসী ইনিংস খেলেন ল্যাথাম। আর বাংলদেশের হয়ে মেহেদী হাসান ও সাকিব আল হাসান সর্বোচ্চ ২টি করে উইকেট শিকার করেন। এছাড়া নাসুম আহমেদ ১টি উইকেট তুলে নেন।

স্কোরবোর্ড

বাংলাদেশ – ১৪১/৬ (২০.০)

নিউজিল্যান্ড – ১৩৭/৫ (২০.০)

ফলাফল – বাংলাদেশ ৪ রানে জয়ী 

প্লেয়ার অফ দি ম্যাচ – মাহমুদউল্লাহ


ইংল্যান্ড বনাম ভারত (৪র্থ টেস্ট – ২য় দিন)

প্রথম দিন শেষে ৫৩ রানে ৩ উইকেট হারানো ইংল্যান্ড, ক্রিজে থাকা ডেভিড মালান (২৬) এবং ক্রেগ ওভারটনকে (১) নিয়ে দ্বিতীয় দিন সকালে মাঠে নামে। কিন্তু খেলা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরই ওভারটন (১) ও মালানের (৩১) উইকেট তুলে নেন ভারতীয় পেসার উমেশ যাদব।

৬২ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে রীতিমত ধুঁকছিল ইংল্যান্ড। তবে সেখান থেকে স্বাগতিকদের লড়াইয়ে ফিরিয়েছেন অলি পোপ। জনি বেয়ারস্টোর সঙ্গে ষষ্ঠ উইকেটে ৮৯ আর মঈন আলিকে নিয়ে সপ্তম উইকেটে ৭১ রানের দুটি জুটি গড়ে তোলেন পোপ। বেয়ারস্টো ৩৭ করে মোহাম্মদ সিরাজের শিকার হন, ৩৫ রানে রবীন্দ্র জাদেজাকে উইকেট দেন মঈন।

পরে শার্দুল ঠাকুরের বলে বোল্ড হয়ে ব্যক্তিগত ৮১ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরেন পোপ। শেষে নয় নম্বরে নামা ক্রিস ওকসের ৬০ বলে ৫০ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের সৌজন্যে ২৯০ রানে অল-আউট হয় ইংল্যান্ড। সেই সাথে ৯৯ রানের লিড পায় স্বাগতিকরা। ভারতের পক্ষে উমেশ যাদব সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট শিকার নেন। এছাড়া জসপ্রিত বুমরাহ ও রবীন্দ্র জাদেজা ২টি করে উইকেট তুলে নেন।

নিজেদের ২য় ইনিংসে ব্যাটিং করতে নেমে বিনা উইকেটে ৪৩ রান তুলে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে ভারত। রোহিত শর্মা ২০ ও কেএল রাহুল ২২ রানে অপরাজিত আছেন। ইংল্যান্ডের চেয়ে এখনো ৫৬ রানে পিছিয়ে আছে ভারত।

স্কোরবোর্ড

ভারত (১ম ইনিংস) – ১৯১/১০ (৬১.৩)

ইংল্যান্ড (১ম ইনিংস) – ২৯০/১০ (৮৪.০)

ভারত (২য় ইনিংস) – ৪৩/০ (১৬.০)

 

বিশ্বজুড়ে প্রাণবন্ত ক্রিকেট খেলা চলছে। তাদের আপডেটের জন্য, Baji –র সাথেই থাকুন!

আরো ব্লগ