ব্লগ

ক্রিকেট হাইলাইটস, ০৩ ডিসেম্বর: ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (২য় টেস্ট – ১ম দিন), শ্রীলঙ্কা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ (২য় টেস্ট – ৫ম দিন)

ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে ২য় টেস্টের ১ম দিনের খেলা এবং শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে ২য় টেস্টের ৫ম দিনের ক্রিকেট অ্যাকশন গতকাল মাঠে গড়িয়েছে। দিনের খেলাগুলোর উত্তেজনাপূর্ণ মুহূর্তগুলো জানতে নিবন্ধনটি পড়া চালিয়ে যান।

ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (দ্বিতীয় টেস্ট – ১ম দিন)

মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথমদিন দেখা গেছে প্রকৃতির বাধা। সারাদিনে খেলা সম্ভব হয়েছে ৭০ ওভার। যেখানে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়ে ২২১ রান করেছে ভারত। মায়াঙ্ক আগরওয়াল ১২০ রানে অপরাজিত রয়েছেন। সফরকারীদের হয়ে ৪টি উইকেটই শিকার করেছেন ভারতীয় বংশভূত কিউই স্পিনার এজাজ প্যাটেল।

তবে স্বাগতিকদের উদ্বোধনী জুটির শুরুটা ছিল দারুণ। মায়াঙ্ক আগরওয়াল ও শুবমান গিল মিলে যোগ করেন ৮০ রান। কিন্তু এজাজের বলে আউটসাইড এজ হয়ে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান শুবমান (৪৪)। সেখানেই শুরু ভারতের পতনের।

এক ওভার পর শূন্য রানে আউট হন চেতেশ্বর পুজারা। তার দেখাদেখি বিরাট কোহলিও প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন রানের খাতা খোলার আগেই। তবে কোহলির লেগ বিফোর আউটের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্নের জায়গা ছিল অনেক। শেষ পর্যন্ত থার্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই ছিল চূড়ান্ত। ফলে শূন্য রানেই সাজঘরে ফিরেন ভারতীয় অধিনায়ক।

চোখের পলকে স্বাগতিকদের স্কোরবোর্ড ৮০/০ থেকে ৮০/৩ এ পরিণত হয়। সেখান থেকে শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে প্রাথমিক প্রতিরোধ গড়েন মায়াঙ্ক। এ দুজনের জুটিতে আসে ৮০ রান। যেখানে শ্রেয়াসের অবদান ছিল মাত্র ১৮ রান। তিনিও এজাজের চতুর্থ শিকারে পরিণত হয় সাজঘরে ফিরেন।

এরপর দিনের বাকি ২২.২ ওভারে আর বিপদ ঘটতে দেননি ঋদ্ধিমান সাহা ও মায়াঙ্ক । নিজের চতুর্থ সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে উদ্দাম উদযাপনে মাতেন মায়াঙ্ক। দিনের খেলা শেষে ১৪ চার ও ৪ ছক্কায়, ১২০ রানে অপরাজিত আছেন তিনি। অপরদিকে ঋদ্ধিমান ৫৩ বল খেলে ২৫ রানে অপরাজিত আছেন।

স্কোরবোর্ড

ভারত (১ম ইনিংস) – ২২১/৪ (৭০.০)


শ্রীলঙ্কা বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ (দ্বিতীয় টেস্ট – ৫ম দিন)

সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচের শেষ দিনে ২৯৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে লঙ্কান স্পিনারদের ঘূর্ণি জাদুতে মাত্র ১৩২ রানেই অলআউট হয়েছে ক্যারিবীয়রা। সেই সাথে সফরকারীদের বিপক্ষে ১৬৪ রানের বিশাল জয় পেয়েছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা।

চতুর্থ দিন শেষে আট উইকেট হারিয়ে ৩২৮ রান সংগ্রহ করা শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দল, ক্রিজে থাকা ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা (১৫৩) ও লাসিথ এমবুলদেনিয়া (২৫) নিয়ে পঞ্চম দিন সকালে মাঠে নামে। সেখান থেকে ৯ উইকেটে ৩৪৫ রান সংগ্রহ করে ইনিংস ঘোষণা দেয় তারা। ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ১৫৫ রান করে অপরাজিত থাকেন।

২৯৭ রানের লক্ষ্য খেলতে নেমে দ্বিতীয় উইকেটে ৪৯ রানের জুটি গড়ে প্রতিরোধের আভাস দিয়েছিল এনক্রুমা বোনার ও জার্মেইন ব্ল্যাকউড। ইনিংসের সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন বোনার, ব্ল্যাকউডের ব্যাট থেকে আসে ৩৬ রান। এছাড়া আর কেউই লঙ্কান স্পিনারদের সামনে টিকতে পারেনি। শেষে ৫৬.১ ওভারে ১৩২ রানে গুটিয়ে যায় তাদের ইনিংস।

শ্রীলঙ্কার হয়ে রমেশ মেন্ডিস এবং লাসিথ এমবুলদেনিয়া উভয়ই ৫টি করে উইকেট শিকার করেন। ১৫৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের সঙ্গে পাঁচটি ক্যাচ ধরায় প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন ধনাঞ্জয়া। এই ম্যাচে ১১ উইকেটসহ মোট ১৮ উইকেট নেওয়ায় প্লেয়ার অফ দ্য সিরিজ নির্বাচিত হয়েছেন রমেশ মেন্ডিস।

স্কোরবোর্ড

শ্রীলঙ্কা (১ম ইনিংস) – ২০৪/১০ (৬১.৩)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (১ম ইনিংস) – ২৫৩/১০ (১০৪.২)

শ্রীলঙ্কা (২য় ইনিংস) – ৩৪৫/৯ (ডি) (১২১.৪)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (২য় ইনিংস) – ১৩২/১০ (৫৬.১)

ফলাফল – শ্রীলঙ্কা ১৬৪ রানে জয়ী

প্লেয়ার অফ দ্য ম্যাচ – ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা

প্লেয়ার অফ দ্য সিরিজ – রমেশ মেন্ডিস

 

লাল বলের ক্রিকেটে তীব্র ক্রিকেট অ্যাকশন দেখা যাচ্ছে। এটির আপডেটের জন্য, Bajiসাথেই থাকুন!

আরো ব্লগ