আজকের ট্রেন্ডিং

আইপিএল ২০২১ এর প্লে-অফের জন্য একটি জায়গা এভেইল্যাবল; চারটি ফ্র্যাঞ্চাইজি এটি পেতে দুর্দান্ত প্রতিযোগিতায় লিপ্ত

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ২০২১ এর গ্রুপ পর্বের ৫৬টি ম্যাচের মধ্যে ৫০টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়ে গিয়েছে। তিনটি দল (চেন্নাই সুপার কিংস, দিল্লি ক্যাপিট্যালস ও রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু) প্লে-অফে নিজেদের জায়গা করে নিয়েছে কিন্তু প্লে-অফে কোয়ালিফায়ার ১-এর জন্য মুখোমুখি হওয়া শীর্ষ দুইটি দল এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আর প্রথম দল হিসেবে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

এখনও আরও একটি প্লে-অফের টিকিট বাকি রয়েছে। কিন্তু বাকি থাকা ছয় ম্যাচে এই এক টিকিটের জন্য লড়বে চারটি দল। সেই চার দল হলো কলকাতা নাইট রাইডার্স, রাজস্থান রয়্যালস, পাঞ্জাব কিংস ও মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে বর্তমানে কেকেআর পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরে অবস্থান করছে। সমান সংখ্যক ম্যাচ খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে রয়েছে পাঞ্জাব। 

১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে রাজস্থান পয়েন্ট টেবিলের ৬ষ্ঠ স্থানে রয়েছে। সমান সংখ্যক ম্যাচ খেলে ১০ পয়েন্ট থাকলেও, নেট রানরেটের কারণে সাত নম্বরে অবস্থান করছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। বাকি থাকা ছয় ম্যাচে চার দলের সামনেই রয়েছে প্লে-অফের টিকিট পাওয়ার অপার সম্ভাবনা। দলগুলো পরবর্তী রাউন্ডে খেলার সুযোগ পাওয়ার জন্য সমীকরনগুলো নিম্নে বর্ণীতঃ 

কলকাতা নাইট রাইডার্স

চার দলের মধ্যে ভালো নেট রানরেটের (+০.২৯৪) কারণে সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে কেকেআর। বৃহস্পতিবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে কেকেআর এর প্রতিপক্ষ হবে রাজস্থান রয়্যালস। এই ম্যাচে কেকআর জিতলে ভালো নেট রানরেটের কারণে চলে যাবে প্লে-অফে। আর হেরে গেলেও তাদের অপেক্ষা করতে হবে যাতে অন্য কোনো দল ১২ পয়েন্টের বেশি না পায়।

অবশিষ্ট ম্যাচ: বনাম আরআর (৭ই অক্টোবর)

রাজস্থান রয়্যালস

আইপিএলের প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন দল আরআর এর জন্য সমীকরণটা সবচেয়ে সহজ। তাদের বাকি রয়েছে দুইটি ম্যাচ। এ দুই ম্যাচের প্রতিপক্ষ মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও কেকেআর। সঞ্জু স্যামসনের দল এ দুই ম্যাচে জয়ী হলে আর কোনো হিসেবে নিকেশ ছাড়াই তাঁরা প্লে-অফে চলে যাবে। অন্যদিকে কেকেআর এর কাছে হারলে বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাবে তাদের। আর কেকেআরকে হারিয়ে ১২ পয়েন্ট হলে অন্যান্য দলের রেজাল্টের জন্য তাদের অপেক্ষায় থাকতে হবে। 

অবশিষ্ট ম্যাচ: বনাম এমআই (৫ই অক্টোবর), বনাম কেকেআর (অক্টোবর ৭ই) 

মুম্বাই ইন্ডিয়ানস

বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের জন্য কোনো সুখবর নেই। তাদের বাকি রয়েছে দুই ম্যাচ। এ দুই ম্যাচে প্রতিপক্ষ আরআর ও সানরাইজার্স। তারা এই দুটি ম্যাচে জয়ী হলে তাদের ১৪ পয়েন্ট হবে। কিন্তু কেকেআর তাদের শেষ ম্যাচ জয়ী হলেও ১৪ পয়েন্ট হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে ইন্ডিয়ানসের এ দুইটি জয় বিশাল ব্যবধানের হতে হবে। যাতে তারা নেট রানরেটে এগিতে যেতে পারে।

অবশিষ্ট ম্যাচ: বনাম আরআর (৫ই অক্টোবর), বনাম এসআরএইচ (৮ই অক্টোবর) 

পাঞ্জাব কিংস

কাগজে কলমে গাণিতিক হিসেবে এখনও পিবিকেএস এর সম্ভাবনা বাকি রয়েছে। কিন্তু বাস্তবিক বিচারে তাদের সম্ভাবনা খুবই কম। শেষ ম্যাচে সিএসকে কে পরাজিত করতে পারলে পিবিকেএস এর ১২ পয়েন্ট হবে। সেক্ষেত্রে তাদের অপেক্ষা করতে কেকেআর, এমআই ও আরআর যেনো ১২ পয়েন্টের বেশি না পায়। এরপর আবার নেট রানরেটও তাদের নিজেদের পক্ষে পেতে হবে। যা কার্যত এক অলীক কল্পনাই বটে।

অবশিষ্ট ম্যাচ: বনাম সিএসকে (৭ই অক্টোবর) 

বিশ্বের সবচেয়ে জমজমাট ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের আরো উত্তেজনাপূর্ণ আপডেটের জন্য, Baji –র সাথেই থাকুন!

আরো আজকের ট্রেন্ডিং